৪:৩৫ এএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার | | ১ সফর ১৪৪২

Developer | ডেস্ক

কারি অ্যাকসেন্টে ৪ রকমের বিরিয়ানি

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৫৬


করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) রোধে সরকারি নিদের্শনা মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাসা-বাড়িতে অবস্থান করছেন প্রায় সবাই।  সেই সঙ্গে বাসা-বাড়িরই রান্না-বান্না করা খাবার খাচ্ছেন তারা।  পারতপক্ষে বাইরে খাবার এড়িয়ে চলছেন অনেকেই।  এই অবস্থা প্রায় ৪ মাস ধরে চলছে বাংলাদেশে। 

লকডাউনে ঘরবন্দি থাকতে থাকতে আর ঘরের খাবার খেতে খেতে কেউ কেউ বোরিংও হয়ে গেছেন।  যারা ভোজনরসিক তারা করোনার ভয়ে হোটেল বা রেস্তোরাঁর খাবারও খাচ্ছেন না। 

করোনাকালে ঘর থেকে বের হয়ে কোনও হোটেল বা রেস্তোরাঁ মুখরোচক খাবার খেতে পারছেন না বা ভয় পাচ্ছেন তাদের জন্য বিশেষ আয়োজন করেছে গুলশান ২ এ অবস্থিত অভিজাত রেস্তোরাঁ ‘কারি অ্যাকসেন্ট’। 

কলকাতা দম বিরিয়ানি

স্বাস্থ্য সচেতন ভোজনরসিকদের জন্য এক বা দুই রকম স্বাদ নয়,  চার চার রকম বৈচিত্র ও স্বাদের বিরিয়ানির ব্যবস্থা করেছে কারি অ্যাকসেন্ট। 

অর্ডার দিলেই গ্রাহকের দৌড়গোড়ায় চলে যাবে মুখরোচক এসব বিরিয়ানি। 

কারি অ্যাকসেন্ট এর পরিচালক (অপারেশন) অভিষেক সিনহা জানান, লকডাউনের মধ্যে অনেকেই মুখরোচক খাবার উপভোগ করতে চান।  কিন্তু উদ্বুদ্ধ পরিস্থিতিতে তা সম্ভব হয়ে উঠছে না।  তাই ওইসব ভোজনরসিকদের জন্য ভারতের বিভিন্ন প্রদেশের প্রসিদ্ধ বিরিয়ানি হাজির করা হয়েছে কারি অ্যাকসেন্টে। 

তিনি জানান, বাসমতি চাল দিয়ে চার রকম ও স্বাদের বিরিয়ানি মিলবে কারি অ্যাকসেন্টে।  এর মধ্যে রয়েছে কলকাতার বিখ্যাত ‘মাটন দম বিরিয়ানি’।  এই বিরিয়ানিতে থাকবে আলু, ডিম ও মাটন।  সাথে থাকবে মৌসুমি সালাদ ও রায়তা।  এই বিরিয়ানি প্যাকেজের দাম পড়বে ৩০০টাকা।  

পনির-সবজি বিরিয়ানি

একই দামে অর্থাৎ ৩০০ টাকায় মিলবে ভারতের অন্যতম প্রসিদ্ধ অঞ্চল লখনৌর বিশেষ রেসিপির ‘মাটন গোশত বিরিয়ানি’।  এই বিরিয়ানির প্যাকেজেও থাকছে মৌসুমি সালাদ ও রায়তা। 

যারা হায়দ্রাবাদি বিরিয়ানির খুবই ভক্ত।  তাদের জন্যও রয়েছে বিশেষ আয়োজন।  উন্নত মানের মুরগির গোশত দিয়ে মিলবে ‘হায়দ্রাবাদি মুর্গ বিরিয়ানি’।  এই বিরিয়ানির প্যাকেজেও থাকছে মৌসুমি সালাদ ও রায়তা।  প্যাকেজের দাম পড়বে ২৫০ টাকা। 

যারা নিরামিষভোজী অথচ জিভে জল আনা বিরিয়ানি খেতে খুবই পছন্দ করেন।  তাদের জন্যেও রয়েছে বিশেষ আয়োজন।  যেমন— পনির সবজি বিরিয়ানি।  যেখানে থাকবে মৌসুমি সবজির সমাহার।  এই বিরিয়ানির প্যাকেজেও থাকছে মৌসুমি সালাদ ও রায়তা।  প্যাকেজের দাম পড়বে ২৫০ টাকা। 

করোনার কারণে রেস্তোরাঁয় বসে এসব বিরিয়ানি উপভোগ করা যাবে না।  অর্ডারমাফিক সাত-তাড়াতাড়ি তৈরি করে গ্রাহককে সরবরাহ করা হচ্ছে।  

হায়দ্রাবাদি মুর্গ বিরিয়ানি

HACCAP সার্টিফাইডকৃত এই রেস্তোরাঁয় পার্সেল থেকে শুরু করে রান্না-বান্না ও পরিবেশনায় সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়।  

রেস্তোরাঁয় সরাসরি এসেও যেমন অর্ডার দেয়া যাবে তেমনি ফুডপান্ডা, হাংরিনাকি ও সহজফুড এর মাধ্যমেও অর্ডার দিয়ে পছন্দমাফিক বিরিয়ানি সংগ্রহ করা যাবে।