৭:০৭ এএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার | | ৩ রজব ১৪৪১

Developer | ডেস্ক

সীমান্ত থেকে ৫ বাংলাদেশি ধরে নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে মানবন্ধন

০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৩১


কেউ দাঁড়িয়েছিলেন ছেলের মুক্তির দাবিতে, কেউ শিশু সন্তানকে কোলে নিয়ে হাজির হন স্বামীকে ফিরে পেতে।  রাজশাহীর গোদাগাড়ী সীমান্তের ভেতরে প্রবেশ করে ৫ বাংলাদেশিকে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ ধরে নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।  বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে মহাসড়কের ওপর মানববন্ধন করে তারা। 

মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় গহমাবোনা এলাকাবাসী ও দামকুড়া মৎস্যজীবী জেলে সমিতির আয়োজনে রাজশাহী-চাপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়ক গহমাবোনা এলাকায় এ মানববন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। 

গত ৩১ জানুয়ারি বেলা ১১টার দিকে জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার খরচাকা সীমান্ত থেকে রাজন হোসেন, মো. সোহেল, কাবিল, মো. শাহীন ও শফিকুলকে ধরে নিয়ে যায় বিএসএফ।  তাদের প্রত্যেকের বাড়ি পবা উপজেলার গহমাবোনা গ্রামে। 

এ নিয়ে শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) সকালে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) পতাকা বৈঠকের জন্য সীমান্তে গেলেও বিএসএফ প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে আসেনি।  পরে বিকেলে দ্বিতীয় দফায় পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হলেও শূন্য হাতে ফিরে আসতে হয়েছে বিজিবিকে।  অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক ওই ৫ বাংলাদেশিকে ভারতের মুর্শিদাবাদ থানায় হস্তান্তরের মধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। 

এ বিষয়ে বিজিবি’র ১ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দিন মাহমুদ জানান, বিএসএফের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বিজিবি’র প্রতিনিধি দল সেখানে হাজির হলেও আসেনি বিএসএফ।  ফলে শুন্য হাতেই ফিরে আসতে হয় বিজিবিকে।  পরে আবারো তারা বিকেল সাড়ে ৪টায় পতাকা বৈঠকের বসার প্রতিশ্রুতি দেয়।  পরে পতাকা বৈঠক হলেও বিএসএফ বিজিবিকে জানায়, অনুপ্রবেশের অভিযোগে বাংলাদেশি ৫ জেলেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।