১০:৫১ পিএম, ৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার | | ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

Developer | ডেস্ক

গণ ধর্ষণ নিয়ে যখন তোলপাড় তখন সিলেটে আবার ধর্ষণের অভিযোগ?

০৬ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৩৪


সিলেটের এমসি কলেজে স্বামীকে বেঁধে ছাত্রাবাসে স্ত্রীকে গণধর্ষণ ও বেড়ানোর কথা বলে বাসায় এনে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যেই এবার পাঁচ সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে শ্রমিক লীগ নেতার বিরুদ্ধে।   এ ঘটনায় গত রোববার রাতে অভিযুক্ত শ্রমিক লীগ নেতা দেলেয়ার হোসেন ও তার এক সহযোগী হারুন আহমদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।   আজ সোমবার আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 

দেলেয়ার হোসেন ও তার সহযোগী হারুন আহমদ সিলেট নগরীর শামীমাবাদ আবাসিক এলাকার ৪ নম্বর রোডের ২ নম্বর বাসার দুইতলার ভাড়াটে।   ধর্ষণের  শিকার ওই নারী একই এলাকার বাসিন্দা। 

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) জ্যোর্তিময় সরকার মামলার বরাত দিয়ে জানান, গত পরশু শামীমাবাদ আবাসিক এলাকার ৪নম্বর রোডের পাঁচ সন্তানের এক জননী ধর্ষনের শিকার হন।  পরে তিনি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি হন।  গত রোববার রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ আসলে সঙ্গে সঙ্গে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত দেলোয়ার ও তার সহযোগী হারুনকে গ্রেপ্তার করা হয়।  মামলায় ওই নারী অভিযোগ করেন দেলোয়ার তাকে ধর্ষণ করে এবং আরও তিনজন ধর্ষণে সহযোগিতা করে।